Breaking News

বরই ‘বিতর্কে’ সুর বদলালেন শিল্পমন্ত্রী

ইফতারিতে বরই খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে সম্প্রতি বক্তব্য দিয়েছিলেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। সে বক্তব্য নিয়ে ব্যাপক চর্চা হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সংবাদ মাধ্যমে। শুরু হয় তীব্র সমালোচনা। এবার সমালোচনার মুখে কথা পাল্টালেন শিল্পমন্ত্রী। তার দাবি, তিনি ইফতারে খেজুর বাদ দিতে বলেননি। বলেছেন বিদেশি ফলের সাথে দেশি ফল যেমন বরই রাখতে।

https://inqilabbd.com/

সোমবার (১০ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর তেঁজগাওয়ে বিএসটিআইয়ে এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন শিল্পমন্ত্রী। সেখানে সেই বক্তব্যের (বরই খাওয়ার) বিষয়ে শিল্পমন্ত্রীর কাছে জানতে চান সাংবাদিকরা।

এসময় নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেন, আমি বলেছি খেজুরের সাথে ইফতারের প্লেটটা আমাদের দেশীয় ফল দিয়ে সাজান। আমি বলেছি- আপেল সবকিছু মিলে..। এ সময় এক সাংবাদিক মন্ত্রীর বক্তব্যের প্রেক্ষিতে বলেন, আপনি তো এসব উচ্চারণ করেননি সেসময়। জবাবে মন্ত্রী বলেন, আমি খেজুরের নাম উচ্চারণই করিনি। কাজেই সেটি তো প্রশ্ন ওঠে না।

আরও পড়ুন: বরই দিয়ে ইফতার করেন, আঙ্গুর-আপেল লাগবে কেন: শিল্পমন্ত্রী

এ সময় তিনি হাসানুল হক ইনুর বক্তব্যের ব্যাখা দেন। বরই খাওয়ার পরামর্শের প্রসঙ্গ টেনে রাজশাহীর এক অনুষ্ঠানে ইনু শিল্পমন্ত্রীর তীব্র সমালোচনা করে বলেছিলেন, গরিব মানুষ বরই খাবে। আর তুমি আঙুর আর খেজুর খাবা, তা হবে না, তা হবে না।

বিষয়টির ব্যাখ্যায় শিল্পমন্ত্রী বলেন, পুরো বিষয়টাকেই ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। ইনুর সঙ্গে তার ব্যক্তিগত সম্পর্ক খুব ভালো বলেও দাবি করেন তিনি। তিনি বলেন, বিতর্ক মিডিয়ার সৃষ্টি। ইনুর কাছে ‍তার বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা গেছে।

আরেক প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, অনেকের অনেক জায়গায় জ্বালা আছে। সেই জ্বালা থেকে হয়তো ভিন্নজন ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে। তাদের এই কষ্ট লাঘব করা সম্ভব না বলেও মন্তব্য করেন। বলেন, সমালোচনাকারীরা পাগল হয়ে গেছে।

মন্ত্রী বলেন, রমজানে কৃচ্ছতা মানা হয় না। অনেকেই অতিরিক্ত পণ্য কিনে রাখেন। আবার অনেক ব্যবসায়ীও দাম বাড়িয়ে সৌদিতে গিয়ে বসে থাকেন বলেও মন্তব্য করেন নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *